28 November- 2020 ।। ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্মাণে শিক্ষা কর্মকর্তার বাঁধা দেয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরের স্বরূপকাঠীর ১৫৮ নং মধ্য পশ্চিম সোহাগদল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণে বাঁধা দেয়ায় অভিযোগে পাওয়া গেছে । স্থানীয় জাহিদ সোহেলের নামের এক ব্যক্তির নামে এ অভিযোগে জানিয়েছে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয়রা । তিনি শিক্ষা ক্যাডারের আওতায় একজন শিক্ষা কর্মকর্তা ।

জানাযায়, দীর্ঘ প্রায় ২৭ বছর ধরে প্রাথমিক বিদ্যালয়টি একটি টিনসেড ভবন রয়েছে ,যার অবস্থা খুবই শোচনীয়।  কিছুদিন আগে পুরানো ভবনের জায়গায় একটি পাকা ভবনের বরাদ্দ পায় বিদ্যালটি ।

নকশা অনুযায়ী সরকারি জায়গায় নির্মাণের জন্য ১৭ নভেম্বর (মঙ্গলবার) সকাল ১০ টার দিকে স্থানীয় এলজিইডি’র উপ-সহকারি প্রকৌশলী উপস্থিতিতে মাটি খনন কাজ শুরু হয়, এসময় চেতনা পরিষদ নামের একটি সংগঠনের সভাপতি জাহিদ সোহেল এর নেতৃত্বে মাটি কাটার কাজে বাঁধা শিশু-কিশোররা ।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, চেতনা পরিষদ নামের একটি সংগঠন তৈরী করে সোহেল দেশ ব্যাপি চাঁদাবাজী করে বেড়াচ্ছে। সরকারি ভাবে গণকবর উন্নয়নের নামে বরাদ্দ এনে তা আত্মসাৎ করে ও  তার নিজস্ব পারিবারিক কবরস্থান বাধাইয়ের কাজ করেন।করোনা কালে ছুটিতে বাড়ি থেকে এখন সে তার আশপাশের লোকদের জমি দখলে নেমেছেন। বিসিএস ক্যাডার হওয়ায় উপজেলা ও জেলা প্রশাসনের সাথে পরিচয় থাকায় একের পর এক চাঁদাবাজী করে বেড়াচ্ছেন তিনি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত জাহিদ সোহেল জানান, বিদ্যালয়ের ওই জমিতে ভবন না করে পিছনে করার জন্য আমরা দাবী জানিয়েছি। এখানে একটি ট্যাকনিক্যাল কলেজ নির্মাণ করা হবে তাই এই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন একি দাগের জমির অন্য পাশে করার জন্য আমাদের(আমার ও জাকির দাদার)দাবী। চেতনা পরিষদ সংগঠনের মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন উদ্যোগ ইতোপূর্বে গ্রহন করেছি এবং করব।

উপজেলা এলজিইডির উপ-সহকারি প্রকৌশলী আবুল হোসেন উপস্থিত ভাবে জানান, প্রয়োজনে প্রশাসনিক সহায়তায় এখানে কাজ চলবে। ওই বিসিএস ক্যাডার আমি চিনি না। সরকারি জমি এবং তার চতুরপার্শে সীমানা পিলার দিয়ে নির্ধারীত অতএব এখানে কোন ক্যাডার চলবে না।

উপজেলা সহকারি প্রকৌশলী মীর আলী সাকির বলেন, সরকারের নিয়ম অনুযায়ী শিক্ষা দপ্তরের কাজ বাস্তবায়ন করছি আমরা। এখানে সুধুমাত্র ভবন নয় পুরো জমি বাউন্ডারী ওয়াল করা হবে। আমি সোহেল সাহেবকে জানিয়েছি। তিনি(সোহেল) এযাবৎ সামাজিক ভাবে বাঁধা দিয়েছেন যদি কোন বল প্রয়োগ করেন তাহলে আমার ঠিকাদার অবশ্যই ব্যবস্থা নিবেন এবং আমরা প্রয়োজনে আইনত ব্যবস্থা নেব।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মোশারফ হোসেন জানান, তিনি(সোহেল) কি কারণে বাঁধা দিচ্ছেন আমি জানিনা। ব্যাক্তি স্বার্থে হোক বা যে কোন কারণেই হোক সেটা উপজেলা ইঞ্জিনিয়র সাহেব ভাল বলতে পারবেন।

সা/রা/পিপোষ্ট




আরো সংবাদ




   

সম্পাদক ও প্রকাশক : কে.এস.রায়

  • অস্থায়ী অফিস : লইয়ার্স  প্লাজা , পিরোজপুর ।
  • যোগাযোগ : ০৯৬৩৮০৪৭৫৭৩
  • ইমেইল : pirojpurpost24@gmail.com
টপ
প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করছে কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপিরা শেখ হাসিনার দুরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে সন্ধ্যা নদীর তীব্র ভাঙনের কবলে আমরাজুড়ী বাজার; ভাঙ্গনরোধে নদী তীরে অবস্থান কর্মসূচি ইন্দুরকানীতে নব গঠিত দুইটি ইউনিয়ন সহ চারটি ইউনিয়নের খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ বরিশাল বিএম কলেজের নতুন অধ্যক্ষ জিয়াউল হক আরো তিন মাস জামিনের মেয়াদ বাড়ল আউয়াল দম্পতির ভান্ডারিয়ায় বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে সেমিনার অনুষ্ঠিত ভান্ডারিয়ায় টেম্পু কেড়ে নিল কলেজ ছাত্রের প্রাণ কাউখালীতে ৫ কেজি গাঁজা সহ পিতা- পুত্র গ্রেফতার ক্ষমতা হস্তান্তরে রাজি ট্রাম্প