1. pirojpurpost24@gmail.com : admin :
  2. munnait2020@gmail.com : Admin : Admin
  3. kumarshuvoroy@gmail.com : pirojpurpost :
  4. amitbiswas8900@gmail.com : Amit Biswas : Amit Biswas
  5. eshuvo1@gmail.com : shuvo roy : shuvo roy
পিরোজপুর ও মেজর জিয়ার স্মৃতিচারণা করলেন প্রাক্তন গভর্নর | পিরোজপুর পোষ্ট ২৪
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ

পিরোজপুর ও মেজর জিয়ার স্মৃতিচারণা করলেন প্রাক্তন গভর্নর

  • শেষ হালনাগাদ : রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
  • ১৬৭ জন সংবাদটি দেখেছেন

পিরোজপুর পোষ্ট : শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান-এর সময়ে আমি সরকারি প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করছিলাম। ১৯৭৮ সালে বৃহত্তর ঢাকা জেলা’র (নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, মানিকগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ মিলিয়ে) অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার হিসেবে কাজ শুরু করি।

১৯৭৯ সালে আমি পিরোজপুর মহকুমার (এখন জেলা) প্রশাসক হিসেবে যোগ দিই। তখন দেশের সকল স্থানেই, এমনকি প্রত্যন্ত অঞ্চলে কৃষি কাজের উপর জোর দেওয়া, রাস্তাঘাট নির্মাণসহ অন্য কাজে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা ছিলো প্রশাসকের অন্যতম একটি দায়িত্ব। তখন খাল কাটা কর্মসূচি এবং ইয়ুথ কমপ্লেক্স (যুব কমপ্লেক্স)-এর কাজ অনেক গুরুত্ব পায়। আমি বছরখানেকের বেশি পিরোজপুর থাকার সময় তিনি তিনবার সেই মহকুমা পরিদর্শনে যান। এটি ছিলো একটি জনপদের জন্য বিরল ঘটনা।

পিরোজপুরে প্রেসিডেন্ট জিয়া প্রথম আসেন ২৬ ফেব্রুয়ারি, ১৯৮০ তারিখে। সেদিন তিনি পিরোজপুর হাইস্কুলে বিশাল জনসভায় ভাষণ দেন। তারপর মধ্যাহ্ন আহারের পর তিনি স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা ও কর্মী; বিশেষ করে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের লোকদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা করেন। তাঁর সংগে মন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি প্রয়াত আব্দুর রহমান বিশ্বাস, তৎকালীন সংসদ সদস্য প্রয়াত একে ফয়জুল হকসহ অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তি ছিলেন। প্রশাসনের কর্মকর্তা হিসেবে আমি, বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশের ডিআইজি, জেলা প্রশাসক ও পুলিশের এসপিসহ সব কর্মকর্তা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছি।

দ্বিতীয়বার ১৯৮০ সালের ১৮ মার্চ জিয়ানগর উপজেলার (বর্তমানে নাম পরিবর্তিত) উত্তর ভবানীপুরে খাল খনন শেষ হওয়ার পর সেটা চালু করেন। দূর দূরান্ত থেকে অগুণতি মানুষ সেই অনুষ্ঠানে এসেছিলো।

তৃতীয়বার তিনি আসেন ১৯৮০ সালের ২ এপ্রিল। তখন তিনি বানারীপাড়া৷ (বর্তমান) উপজেলার সৈয়দকাঠি খাল উদ্বোধন করেন। সেখান থেকে তিনি বানারীপাড়া শহরে এসে স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিদের সংগে আলাপ-আলোচনা করে ঢাকায় ফিরে যান।

তিনটি সফরেই আমি দেখেছি, তাঁর কর্মোদ্যম, উৎসাহ এবং বিশেষ করে জনগণের জন্য তাঁর অশেষ ভালোবাসা। একজন স্বার্থহীন নিবেদিতপ্রাণ মানুষের পক্ষেই সম্ভব এমন আচরণ করা।

লেখক: ড. সালেহউদ্দিন আহমেদ – প্রাক্তন গভর্নর- বাংলাদেশ ব্যাংক এবং অধ্যাপক, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়।

বাংলাভিশন ডিজিটালে প্রকাশিত ৩০ শে মে-২০২১ এর অংশ বিশেষ এখানে তুলে ধরা হলো ।

আরো সংবাদ
পিরোজপুর পোষ্ট ২৪ ডটকম - ২০১৮-২১। (অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের ছবি, ভিডিও ও সংবাদ কপি করা থেকে বিরত থাকুন)
Theme Customized By PIROJPURPOST24
কারিগরি সহায়তায়: Website-open
x